Breaking News

আন্দোলন ও সংগঠন সংবাদ — সাম্যবাদ নভেম্বর ২০১৬

শত বাধা উপেক্ষা করেও সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলন চলছে

সাইকেল র‌্যালিতে ছাত্রলীগের হামলা ও পুলিশি বাধা এবং ভারতীয় দূতাবাস অভিমুখে জাতীয় কমিটির মিছিলে পুলিশের ন্যাক্কারজনক হামলা

14721480_744859138985715_1395179516003401089_n

গত ৩০ সেপ্টেম্বর রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বাতিলের দাবিতে আয়োজিত সাইকেল র‌্যালি কর্মসূচি দফায় দফায় ছাত্রলীগের হামলা, পুলিশী বাধার মুখে পড়ে এবং ও ১৮ অক্টোবর ভারতীয় দূতাবাস অভিমুখে জাতীয় কমিটির মিছিলে পুলিশ হামলা করে। দীর্ঘদিন ধরে সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলন চলমান থাকার কারণে মানুষের মধ্যে এই আন্দোলনের যৌক্তিকতা প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। দেশের বামপন্থী শক্তি শত বাধা-বিঘেœর মধ্যেও এই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। সর্বস্তরের মানুষ স্বতস্ফূর্তভাবে এই আন্দোলনে অংশগ্রহণ করছে। অথচ সরকার জনমতের কোনো তোয়াক্কাই করছে না। জনগণের এধরণের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে পুলিশের হামলা সরকারের ফ্যাসিবাদী শাসনেরই অংশ। আজ পুলিশ প্রশাসন সরকারের দলীয় আজ্ঞাবাহী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। মিছিল পরবর্তী সমাবেশ থেকে জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদ হামলায় জড়িত পুলিশ সদস্যদের বিচার দাবি করেন এবং দেশের সচেতন জনসাধারণকে সুন্দরবন ধ্বংসসহ মহাজোট সরকারের জাতীয় স্বার্থবিরোধী পদক্ষেপের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

সিলেটে ছাত্রলীগের হামলা
সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ১০ নেতা-কর্মী আহত

সুন্দরবনের রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের প্রতিবাদে সিলেটের মদন মোহন কলেজে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট আয়োজিত তথ্যচিত্র প্রদর্শনীতে ২৫ অক্টোবর ছাত্রলীগের হামলায় ১০ ছাত্র ফ্রন্ট নেতা-কর্মী আহত হন। সকাল ১০টায় তথ্যচিত্র প্রদর্শনী শুরু হবার পর বিরাট সংখ্যক সাধারণ শিক্ষার্থীরা উৎসাহ নিয়ে দেখতে আসেন। বেলা ১২টার দিকে ছাত্রলীগ নেতা ইফতেকারুল আহমেদ সুমন, রাজেশ সরকারের নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক সন্ত্রাসী প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায়। হামলায় আহত হয়েছেন ছাত্র ফ্রন্ট সিলেট নগর শাখার সভাপতি রেজাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক রুবাইয়াৎ আহমেদ, কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক রুবেল মিয়া, নগর শাখার স্কুল বিষয়ক সম্পাদক ফাহিম আহমেদ চৌধুরী, সদস্য মিজানুর রহমান, কলেজ শাখার সদস্য পলাশ কান্ত দাশ, সজীবুর রহমান, সুপান্ত রায় শুভসহ ১০ ছাত্র ফ্রন্ট নেতা-কর্মী।

পরবর্তীতে ছাত্র ফ্রন্ট কর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রতিরোধের মুখে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। আহতদের মধ্যে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন রেজাউর রহমান রানা, ফাহিম আহমেদ চেীধুরী, মিজানুর রহমান, সজীবুর রহমান সানী। ছাত্র ফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ বলেন, যুক্তির শক্তিকে প্রতিহত করতেই ছাত্রলীগ গায়ের জোর খাটাচ্ছে। তারা হামলাকারীদের প্রতিরোধ করার জন্যে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান এবং যে কোনো সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

খাদিজার উপর বর্বর হামলা স্পষ্ট দেখিয়ে দিচ্ছে
এ সমাজে নারীর স্থান কোথায়!

20161004_164606-copy-2

গত ৩ অক্টোবর সিলেটের এম.সি.কলেজ ক্যাম্পাসে ঘটে গেল এক নৃশংস ঘটনা। সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস এম.সি. কলেজে এসেছিলো পরীক্ষা দিতে। সেখানে শত শত মানুষের সামনে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলম খাদিজাকে চাপাতি দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে। ভয়ঙ্করভাবে আহত খাদিজা প্রথমে কয়েকদিন ধরে স্কয়ার হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে মৃত্যুর সাথে লড়াই করেছে এবং এখনও চিকিৎসাধীন। এ ঘটনার পর সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্র্ন্ট এম.সি.কলেজ ক্যাম্পাস, সিলেট শহর ও শাহ্জালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ফ্রন্ট বদরুলকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিঃষ্কারের দাবি তুলে।

এই ঘটনার প্রতিবাদে গত ৬ অক্টোবর’১৬ বিকাল ৪ টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সংহতি সমাবেশের আয়োজন করে বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র। সংগঠনের জেলা আহ্বায়ক তামান্না আহমেদের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইশরাত রাহী রিশতার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিলেটের রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষক, চিকিৎসক, প্রকৌশলী, আইনজীবীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার ব্যক্তিবর্গ। প্রত্যেকেই তাদের হৃদয়ের গভীর ব্যথার প্রকাশ ঘটান এ সংহতি সমাবেশে। বক্তব্য রাখেন গণতন্ত্রী পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ব্যারিস্টার আরশ আলী, ওয়ার্কাস পাটির্র কেন্দ্রীয় সদস্য সিকান্দার আলী, বাসদ (মার্কসবাদী) সিলেট জেলা শাখার সদস্য এডভোকেট হুমায়ুন রশীদ সোয়েব, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অম্বরীশ দত্ত, মিশফাক আহমেদ মিশু, সংগীত শিল্পী ও শিক্ষক অনিমেষ বিজয় চেীধুরী, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক রজত গুপ্ত, সুজন সিলেট জেলার সভাপতি ফারুক মাহমুদ চেীধুরী, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন সিলেট প্রতিনিধি সাংবাদিক আল-আজাদ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এর বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সরকার সোহেল রানা, ডাঃ নমিতা দাশ সানি, প্রকৌশলী সোহাগ পারভেজ, এডভোকেট উজ্জ্বল রায়, শাহ্জালাল ইন্সটিটিউট অব বিজনেস টেকনোলজির প্রভাষক অনীক ধর, সিটি স্কুল এন্ড কলেজ এর ভাইস প্রিন্সিপাল ফজলে রহমান চেীধুরী ফারহান, বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র সিলেট জেলার সদস্য লক্ষী পাল, খাদিজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী এষা, তানজিনা প্রমুখ।

এমসি কলেজে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের বিক্ষোভ

খাদিজা আক্তার নার্গিসের উপর এম.সি কলেজ ক্যাম্পাসে বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এম.সি কলেজ শাখার উদ্যোগে দুপুর ১২টায় মিছিল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি শহীদ মিনার থেকে শুরু হয়ে গোটা ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে বাংলা বিভাগের সামনে সমাবেশে মিলিত হয়। এম.সি কলেজ শাখার সংগঠক সাদিয়া নোশিন তাসনিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ছাত্র ফ্রন্ট সিলেট নগর শাখার সহ-সভাপতি সঞ্জয় কান্ত দাস, সাধারণ সম্পাদক রুবাইয়াৎ আহমেদ, রুবেল মিয়া, পিংকি চন্দ প্রমুখ।

এই ঘটনার প্রতিবাদে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোক ও জনগণকে যুক্ত করে এই দুই সংগঠনের স্বতন্ত্র উদ্যোগে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রংপুর, গাইবান্ধাসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

কমরেড কৃষ্ণ কমলের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

kamol-memorial-2016বাসদ (মার্কসবাদী) বগুড়া জেলা শাখার সাবেক সমন্বয়ক কমরেড কৃষ্ণ কমলের ২য় মৃত্যু বার্ষিকীতে বগুড়ার সাতমাথায় স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। পার্টির জেলা সমন্বয়ক শামসুল হক দুলুর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শ্যামল ভট্টাচার্য, পার্টির কেন্দ্রীয় কার্য পরিচালনা কমিটির সদস্য কমরেড ওবায়েদুল্লাহ মুসা। সভা পরিচালনা করেন পার্টির সংগঠক রঞ্জন দে।

বক্তারা বলেন, কমরেড কৃষ্ণ কমল আমৃত্যু শোষিত-মেহনতি মানুষের মুক্তির সংগ্রামে নিবেদিত ছিলেন। এ যুগের সর্বশ্রেষ্ঠ মতবাদ মার্কসবাদ-লেনিনবাদ ও কমরেড শিবদাস ঘোষের চিন্তাধারাকে ধারণ করে মানবমুক্তির সংগ্রামে যুক্ত থাকার মধ্য দিয়েই কমরেড কৃষ্ণ কমল বড় চরিত্রের মানুষ হয়েছেন। আজ আমরা যদি কমরেড কৃষ্ণ কমলের প্রতি সত্যিকার অর্থে শ্রদ্ধা জানাতে চাই তাহলে তাঁর অপূরিত কাজ সম্পন্ন করার জন্য আমাদের ব্রতী হতে হবে। বক্তারা কমরেড কৃষ্ণ কমলের সংগ্রামী জীবনের চেতনাকে ধারণ করে শোষণ মুক্তির সংগ্রাম জোরদার করার আহবান জানান।

রংপুরের পীরগাছা উপজেলা ডাকুয়ার দীঘি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। গত ২১ অক্টোবর’১৬ শুক্রবার বিকেল ৫ টায় বাসদ (মার্কসবাদী) পীরগাছা উপজেলা শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন দলের উপজেলা সংগঠক রঞ্জন বর্মন। প্রধান আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন বাসদ (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় কার্য পরিচালনা কমিটির সদস্য কমরেড ওবায়েদুল্লাহ মুসা। এছাড়াও আলোচনা করেন বাসদ (মার্কসবাদী) রংপুর জেলা সমন্বয়ক কমরেড আনোয়ার হোসেন বাবলু, কমরেড কৃষ্ণ কমলের মেজদাদা শিক্ষক পীযুষ কান্তি বর্মন, শিক্ষক তাপস চন্দ্র সাহা, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা কমিটির সদস্য পলাশ কান্তি নাগ, ছাত্র ফ্রন্ট জেলা কমিটির পাঠাগার সম্পাদক আবু রায়হান বকসী। স্মরণ সভা পরিচালনা করেন লিপি রায়।

বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্রের বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি পেশ

collage_fotor_nari

ইন্টারনেটে পর্নো ওয়েবসাইট ও পর্নো পত্রিকা-সিডি-বই বিক্রি নিষিদ্ধকরণ, মাদক-জুয়া রোধসহ বিভিন্ন দাবিতে বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র-এর কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ১৯ অক্টোবর ঢাকায় তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি, সংস্কৃতি ও তথ্য মন্ত্রণালয়ে এবং সারাদেশে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

গাইবান্ধা: বিক্ষোভ মিছিল শেষে জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে এক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের জেলা সভাপতি অধ্যাপক রোকেয়া খাতুন, সাধারণ সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, সহ-সভাপতি সুভাসিনী দেবী, জাহেদা বেগম মিনা, হালিমা খাতুন, শামীম আরা মিনা প্রমুখ।

রংপুর: কাচারী বাজার চত্বরে জেলা সংগঠক কামরুন্নাহার খানম শিখার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ (মার্কসবাদী) নেতা পলাশ কান্তি নাগ, ছাত্র ফ্রন্ট জেলা সভাপতি আহসানুল আরেফিন তিতু, নন্দিনী দাস, শাপলা রায়, চন্দনা রায়, লিপি রায়।

সিলেট: সিলেট জেলার সদস্য লক্ষী পালের নেতত্বে আমিনা বেগম, শেলী দাস, কেয়া সরকার, সাদিয়া নোশিন তাসনিমসহ সদস্যবৃন্দ জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি পেশ করেন।

দিনাজপুর: দিনাজপুর জেলার সংগঠক রাহানুমা আক্তার রাখির নেতৃত্বে সাথী খালক, শামীমা আক্তার, ইতি বিশ্বাস, অনিতাসহ সদস্যবৃন্দ জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি পেশ করেন।

চট্টগ্রাম: জেলা কমিটির সদস্য জান্নাতুল ফেরদৌস পপি, তাজ নাহার রিপন ও মাহাফুজা খাতুন মলির নেতৃত্বে অন্যান্য সদস্যবৃন্দ জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি পেশ করেন।

নোয়াখালী: জেলার সদস্য স্বর্ণালী আচার্য্যরে নেতৃত্বে মুনতাহার প্রীতি, লিনা, মিমসহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি পেশ করেন।

রামপাল চুক্তি বাতিলের দাবিতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সাইকেল র‌্যালি

dsc_0070-copy

গত ২১ অক্টোবর বিকাল ৩টায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সুন্দরবন বিনাশী রামপাল চুক্তি বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদী সাইকেল র‌্যালির আয়োজন করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা। বিজয় ’৭১-এর পাদদেশে অনুষ্ঠিত সাইকেল র‌্যালির উদ্বোধন ঘোষণা করেন তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ।

তিনি বলেন, “সুন্দরবন ধ্বংস হলে বাংলাদেশ ধ্বংস হবে। আমরা আরও অনেক বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি করতে পারবো, কিন্তু চাইলেও আরেকটি সুন্দরবন তৈরি করতে পারবো না”। ছাত্র ফ্রন্ট বাকৃবি শাখার সভাপতি রাফিকুজ্জামান ফরিদের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক গৌতম করের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সামিনা লুৎফা এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক কাজী শেখ ফরিদ। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বাসদ(মার্কসবাদী) ময়মনসিংহ জেলা শাখার সমন্বয়ক কমরেড শেখর রায় এবং গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতা আবুল হাসান রুবেল এবং প্রমুখ।

এরপর সাইকেল র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় ’৭১ থেকে শুরু হয়ে ময়মনসিংহ শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় বিজয় ’৭১-এ এসে শেষ হয়।

‘আন্দোলন করে কিছু হয়না’- এই তত্ত্বের অনুসারিরা কি বলবেন?

ভর্তি ফরমের মূল্যবৃদ্ধি রুখে দিল শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

dd-copy

প্রতিবছর ভর্তি ফরমের মূল্যবৃদ্ধি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে একটি নিয়মিত ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাণিজ্যিকীকরণ-বেসরকারিকরণের ছোবলে এমনিতেই ছিন্নভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। ছাত্রদের বেতন-সেমিস্টার ফি ইত্যাদি দফায় দফায় বাড়ানো হচ্ছে। কিন্তু যে ছাত্ররা এখনও ভর্তি হয়নি, পরীক্ষা দেবে মাত্র তাদের ফরমের মূল্যও অস্বাভাবিক হারে প্রতি বছর বাড়ানো হয়। ভর্তি পরীক্ষার্থীরা দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসে, তার উপর ফরম পূরণ এখন অন লাইন ও মোবাইল নির্ভর। ফলে তারা সংগঠিত হয়ে প্রতিবাদ জানাতেও পারেনা। অসহায়ভাবে পরিস্থিতি মেনে নিতে হয়। বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলোই একমাত্র ক্যাম্পাসগুলোতে এর বিরুদ্ধে দাঁড়ায়। কিন্তু শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার ভিন্ন ঘটনা ঘটলো।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় ফর্মের মূল্য ৭৫০-৯০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০০০-১২০০ টাকা করা হয়। ২ অক্টোবর প্রশাসনের পক্ষ থেকে মূল্য ঘোষণার পর বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলোর জোট ‘প্রগতিশীল ছাত্রজোট’ বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে মিছিল ও সমাবেশ করে এবং উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি পেশ করে। পরবর্তীতে ফর্মের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সামাজিক সংগঠন এর নেতৃত্বে গড়ে ওঠে ‘ভর্তি ফর্মের বর্ধিত মূল্য বিরোধী শিক্ষার্থী মঞ্চ’। দলে দলে সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা এতে যোগ দেয়।

১৬ অক্টোবর থেকে মঞ্চের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয় এবং প্রশাসনকে আল্টিমেটাম দেয়া হয়। পরবর্তীতে ধারাবাহিক আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এক পর্যায়ে বাধ্য হয়ে ১৯ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের বিশেষ সভা আহ্বান করে। সভায় শিক্ষার্থীদের দাবি প্রশাসন মেনে নেয় এবং ফর্মের মূল্য পুনঃনির্ধারণ করে ৮০০-৯০০ টাকা। যে ছাত্ররা আন্দোলন করে বিজয়ী হলো তারা ভুক্তভোগী নয়। কিন্তু বাণিজ্যিকীকরণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের স্পৃহা থেকেই তারা টানা লড়তে পেরেছে। বলা বাহুল্য বাম ছাত্র সংগঠনগুলো দীর্ঘদিন ধরে লেগে থেকে ছাত্রদের মনে এই জমি তৈরি করেছে।

হতদরিদ্রদের জন্য ১০ টাকা কেজির চাল বিতরণে অনিয়ম-দুর্নীতি বাসদ (মাকর্সবাদী) এবং সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের বিক্ষোভ

gaibandha-photo-02-copy

হতদরিদ্রদের জন্য ১০ টাকা কেজির চাল বিতরণের ঘোষণা দিয়ে জনদরদী সাজছে সরকার, অথচ এই চাল গরীব মানুষ পাচ্ছে না। খোলাবাজারে বিক্রি হচ্ছে গরীবের বরাদ্দ। চাল গ্রহণকারীর তালিকায় আলিশান বাড়ির মালিকরাও আছেন। সারাদেশে পার্টি এবং সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের উদ্যোগে এ বিষয়টিকে কেন্দ্র করে কৃষকদের নিয়ে বিক্ষোভ সংগঠিত করা হয়।

গাইবান্ধা : গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে গত ২৩ অক্টোবর শহরে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে দলীয় কার্যালয় চত্বরে জেলা কমিটির আহবায়ক আহসানুল হাবীব সাঈদের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির সদস্য প্রভাষক গোলাম সাদেক লেবু, প্রভাষক কাজী আবু রাহেন শফিউল্যাহ, নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, শামীম আরা মিনা প্রমুখ।

রংপুর : রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে ২২ অক্টোবর স্থানীয় প্রেসক্লাব চত্ত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বাসদ (মাকর্সবাদী) রংপুর জেলা সমন্বয়ক আনোয়ার হোসেন বাবলুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পার্টি জেলা কমিটির সদস্য পলাশ কান্তি নাগ, আহসানুল আরেফিন তিতু, রোকনুজ্জামান রোকন।

নোয়াখালী : সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট নোয়াখালী জেলা শাখার উদ্যোগে ২৩ অক্টোবর রোববার সকাল ১২টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ক্ষেতমজুর ও কৃষক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্ট জেলা কমিটির আহবায়ক তারকেশ্বর দেবনাথ নান্টু। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলম মিঠু, বাসদ(মার্কসবাদী) জেলা কমিটির আহবায়ক দলিলের রহমান দুলাল, নবগ্রাম অঞ্চলের কৃষক প্রতিনিধি আবুল হাসেম, চরকলমীর কৃষক প্রতিনিধি আরশাদ আলী প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন বিটুল তালুকদার।

আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায় বন্ধের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

গাইবান্ধাঃ সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে ২৯ সেপ্টেম্বর শহরের ১নং ট্রাফিক মোড়ে এক মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। জেলা শাখার সভাপতি শামীম আরা মিনার সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র গাইবান্ধা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক পরমানন্দ দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব আলম মিলন, এসএসসি পরীক্ষার্থী জুলফিকার আলী, আল আমিন, ঝলক মিয়া প্রমুখ।

চট্টগ্রামঃ নগর শাখার উদ্যোগে গত ২৪ অক্টোবর বেলা ১১টায় চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম নিউ মার্কেট চত্বরে সমাবেশ ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন নগর সভাপতি তাজ নাহার রিপন ও পরিচালনা করেন নগর সাধারণ সম্পাদক আরিফ মঈন উদ্দিন । আরো বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের নগর সহ সভাপতি মুক্তা ভট্টাচার্য, সাংগঠনিক সম্পাদক দীপা মজুমদার।

সাম্যবাদ নভেম্বর ২০১৬

Check Also

lenin_sammobad

লেনিন — জে ভি স্ট্যালিন

কমরেডস, আমাকে বলা হয়েছে এখানে আজ সন্ধ্যায় আপনারা লেনিন স্মৃতি সভার আয়োজন করেছেন এবং অন্যতম …