Monday, June 24, 2024
Homeসংবাদ ও প্রেস বিজ্ঞপ্তিপার্টি সংবাদদর্জি শ্রমিকদের সর্বাত্মক ধর্মঘট পালিত - প্রতি শার্টের সেলাই মজুরি বৃদ্ধির ঘোষণা

দর্জি শ্রমিকদের সর্বাত্মক ধর্মঘট পালিত – প্রতি শার্টের সেলাই মজুরি বৃদ্ধির ঘোষণা

01 (1)

প্লেন ফুল শার্ট সেলাই মজুরি ৩০ টাকা ও হাফ শার্টে ২৫ টাকা মজুরীর দাবি না মানায় ধারাবাহিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের ডাকে ধর্মঘট কর্মসূচী আজ সকাল ১০ টা থেকে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকাল ব্যাপী ঘোষণা করা হয়।

১৮ মে ২০১৬ সকাল ৯টা থেকে বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকরা লেডিস মার্কেটের সামনে এসে জড়ো হয়।লেডিস মার্কেটের মুল গেট বন্ধ করে শত শত শ্রমিকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকে। মিছিলে- শ্লোগানে শ্রমিকরা তাদের দাবির কথা জানাতে থাকে। এক পর্যায়ে মালিক পক্ষ এসে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে শ্রমিকদের বিক্ষোভের মুখে তারা পিছু হঠতে বাধ্য হয়। পুলিশ এসে তাদের কয়েক বার তুলে দিতে চেষ্টা করলেও শ্রমিকরা শান্তিপূর্ণ অবস্থান অটুট রাখে। অবশেষে দুপুর ১ টায় স্থানীয় প্রশাসন, শ্রমিক প্রতিনিধি, মালিক প্রতিনিধিদের এক জরুরী সভার মাধ্যমে প্রতি শার্টের সেলাই ২ টাকা মজুরি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত হয় ও আজ রাত থেকে তা কার্যকরের ঘোষণা করা হয়। এই ঘোষণার প্রেক্ষিতে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ৭ ফেব্রুয়ারি সদরঘাট থেকে পদযাত্রা করে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়, যার সংবাদ বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। সর্বশেষ গত ৬ মার্চ সদরঘাট এলাকায় মিছিল-সমাবেশ করে লেডিস মার্কেট দোকান মালিক সমিতি বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করা হয়। সমিতির সভাপতি মজুরি হার বৃদ্ধির বিষয়ে মার্কেটস্থ রেডিমেড পোশাক কারখানার মালিক ও ব্যবসায়ীদের সাথে আলোচনা করবেন বলে জানান এবং মালিক-শ্রমিক আলোচনার জন্য শ্রমিক প্রতিনিধিদের নাম জমা দিতে বলেন। সে অনুসারে নাম জমা দেয়া হয় এবং প্রতিনিধিরা বেশ কয়েকবার সমিতি অফিসে গিয়ে আলোচনা ও খোঁজ-খবর করেন। আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে গত ২১ মার্চ পুনরায় চিঠি দিয়ে শ্রমিকদের দাবির বিষয়ে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানানো হয়।

গত ২৭ এপ্রিল বুধবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেন এবং গত ৫ মে-র মধ্যে মজুরি বৃদ্ধির উদ্যোগ নেয়ার আল্টিমেটাম দেওয়ার পরও মজুরী বৃদ্ধির ঘোষণা না পাওয়ায় শ্রমিকরা কঠোর কর্মসূচীতে যেতে বাধ্য হন।

ধর্মঘট কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সুত্রাপুর থানা সংগঠক রাজীব চক্রবর্তী, ছাত্র নেতা মাসুদ রানা, শ্রমিক প্রতিনিধি আবির মাহমুদ, ইউনুস হোসেন, আফজাল হোসেন, মো: আনোয়ার প্রমুখ।

RELATED ARTICLES

আরও

Recent Comments